DailyBarishalerProhor.Com | logo

১৭ই আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ | ১লা জুলাই, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

বাজারে প্লাস্টিক সামগ্রীর দাপট! আধুনিকতার ছোঁয়ায় হারিয়ে যাচ্ছে বাঁশ-বেত শিল্প

প্রকাশিত : আগস্ট ২৪, ২০২০, ১২:৫৫

বাজারে প্লাস্টিক সামগ্রীর দাপট! আধুনিকতার ছোঁয়ায় হারিয়ে যাচ্ছে বাঁশ-বেত শিল্প

প্রহর ডেস্ক রিপোর্ট: বগুড়ায় আধুনিকতার ছোঁয়ায় হারিয়ে যেতে চলেছে গ্রাম বাংলার ঐতিহ্য বাঁশ ও বেত শিল্প। বাড়ির পাশে বাঁশঝাড় কিংবা বেত বন গ্রামবাংলার চিরায়ত রূপ। এক সময় এ দেশেরই বিস্তীর্ণ জনপদে বাঁশ বেত দিয়ে তৈরী হতো নানা নিত্য প্রয়োজনীয় বাহারি পণ্য। এখন সেই বাঁশ ও বেতের তৈরী পণ্যের আর কদর নেই বললেই চলে। দিন দিন এই শিল্পের কদর কমে যাচ্ছে। এখন চরম দুর্দিন নেমে এসছে শিল্পটির সাথে জড়িতদের। কালের বিবর্তনে আর আধুনিকতার ছোঁয়ায় নানা রূপে প্লাস্টিক সামগ্রী বাজারে আশার কারণে এ শিল্পটি ধংসের কারণ বলে মনে করেন বিশেষজ্ঞরা।

সরেজমিনে জানা গেছে, বগুড়ার জেলার শেরপুর উপজেলার হাপুনিয়া, ধুনট উপজেলা, আদমদীঘীতে এক সময় বড় আখিড়া, বিনাহালী, ধনতলা, কুন্দগ্রাম, বশিকোরা, বেজার, বিহিগ্রাম, তারাপুর বেশ কয়েকটি উপজেলায় প্রায় পাঁচ হাজার পরিবার এই ঝাঁড়ু, র‌্যাক, দোলানা, ডালি, মাছধরা পলিসহ নানা সামগ্রী তৈরী করে দেশের বিভিন্ন স্থানে সরবরাহ করে জীবিকা নির্বাহ করতনে। সংসারে ছিল না এদের অভাব আর অনাটন। বর্তমানে উপজেলা গুলোতে বাঁশ-বেত নেই বললেই চলে। উপযুক্ত রক্ষণাবেক্ষণ ও সরকারি পৃষ্ঠপোষকতার অভাব এবং বাজারে প্লাস্টিক সামগ্রীর দাপটে চারুশিল্পের চাহিদা দিন-দিন কমে যাওয়ার কারণে হারিয়ে যেতে বসেছে বাঁশ ও বেত তৈরী চারুশিল্প। আদমদীঘি উপজেলার বড়আখিড়া ও বিনাহালি গ্রামের ঝাঁড়ু ও দোলনা তৈরীর কারিগর সুবোল, উপেন্দ্র নাথ, বরেন্দ্র নাথ, বিপ্লব, ললিতা, কল্পনা, অনিতা জানান, পূর্ব পুরুষদের পেশা ধরে রাখতে দীর্ঘদিন যাবত এ পেশায় রয়েছি। বর্তমানে বাঁশ ও বেতের সংকট ও চড়া মূল্য হওয়াই তৈরী পণ্যের মূল্য পাওয়া যায়না।

বর্তমানে সময়ের ব্যবধানে আধুনিক স্টিল, প্লাষ্টিকের তৈরি নিত্য নতুন ডিজাইনের বিভিন্ন সামগ্রী খুব সহজে অনেক কম মূল্যে হাতের নাগালে টেকসই হওয়ার কারণে এবং প্রচুর পরিমানে এ সামগ্রী ব্যবহারের কারণে বাঁশ ও বেত দিয়ে প্রস্তুতকৃত শিল্প সামগ্রী সকলের কাছে গ্রহণযোগ্যতা হারিয়ে ফেলছে বলে অনেকেই জানায়। সাথে সাথে এ শিল্পের কারিগররা সীমাহীন কষ্টের মধ্যে থেকেও পূর্ব পুরুষের ঐতিহ্য এখনো ধরে রেখেছে।

অনেকে পেশা বদল করে বিভিন্ন ব্যবসা-বাণিজ্যে জড়িত হয়েছে। বাঁশ ও বেত শিল্পের সাথে যারা জড়িত তাদের প্রায়ই অন্য সম্প্রদায়ের। এরা শুধু সমাজে অবহেলিত বঞ্চিতই নয়, পাশাপাশি সরকারের দেওয়া প্রায় সকল প্রকার সাহায্য সহযোগিতা থেকেও অনেকটা বঞ্চিত বলে তাদের অভিযোগ। সাথে তাদের তৈরি শিল্প সামগ্রীর চাহিদা কালেরগর্ভে হারিয়ে যাবার কারণে অনেকে করছে মানবেতর জীবন-যাপন।


যোগাযোগ

বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যলয় প্রধান কার্যালয়

মারীয়া কমপ্লেক্স, কাশিপুর বাজার, বরিশাল ।

মোবাইলঃ ০১৭১৬৬০৫৯৭১, ০১৫১১০৩৬৮০৯,০১৯১১১৭০৮৮৪

মেইলঃ barishalerprohor.news.bd@gmail.com

সামাজিক যোগাযোগ
Web Design & Developed By
ইঞ্জিনিয়ার বিডি নেটওয়ার্ক

প্রতিষ্ঠাতা :
মোঃ নাছিম শরীফ


:

মেইলঃ barishaler.prohor@yahoo.com
  • মোবাইলঃ ০১৭১১০৩৬৮০৯, ০১৯১৯০৩৬৮০৯
    • সম্পাদক ও প্রকাশক : নাজমুন নাহার শিমু
    • নির্বাহী সম্পাদক: কাজী সজল
    • বার্তা প্রধানঃ মোঃ আল আমিন হোসেন
    ডেইলি বরিশালের প্রহর কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। অনুমতি ছাড়া এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি ও বিষয়বস্তু অন্য কোথাও প্রকাশ করা বেআইনি।