DailyBarishalerProhor.Com | logo

২০শে ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ | ৪ঠা মার্চ, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

বাবুগঞ্জে হিজলা গ্রামে শিশুসহ ৩ জনকে পিটিয়ে যখম ॥ সন্ত্রাসী এস্কেন্দার সিকদারের বিচারের দাবি এলাকাবাসীর

প্রকাশিত : এপ্রিল ২৯, ২০২০, ২০:৩০

বাবুগঞ্জে হিজলা গ্রামে শিশুসহ ৩ জনকে পিটিয়ে যখম ॥ সন্ত্রাসী এস্কেন্দার সিকদারের বিচারের দাবি এলাকাবাসীর

বাবুগঞ্জ প্রতিনিধি>>

বরিশালের বাবুগঞ্জে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে শিশুসহ ৩জনকে পিটিয়ে রক্তাক্ত জখম করেছে প্রতিপক্ষ ভূমিদস্যুরা। এ ঘটনায় থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। অভিযোগ ও আহত সূত্রে জানা যায়, উপজেলার মাধবপাশা ইউনিয়নের হিজলা মেঘিয়া গ্রামের মোঃ কাওছার হোসেন লাল চাঁন সিকদার সাথে একই এলাকার প্রভাবশালী ভূমিদস্যু,ছিনতাই ও মাদক ব্যবসায়ী এস্কেন্দার সিকদারের সাথে জমি-জমা নিয়ে দীর্ঘদিন যাবৎ বিরোধ চলে আসছিল। এরই ধারাবাহিকতায় গতকাল ২:৩০ টায় ভূমিদস্যু এস্কেন্দার সিকদার ও তার ছেলে হেমায়েত ,মোঃ মাসুম সিকদার,মোঃ হ্নদয় সিকদার, অন্তর সিকদার, মোসাঃ নার্গিস বেগম,মোসা সকিনা বেগম মিলে এক দল ভারাটে সন্ত্রাসী নিয়ে দেশীয় অস্ত্র ধারালো চাপাতি,রাম দা নিয়ে কাওছার সিকদারের বসত বাড়ীর পাশে ভোগ দখলীয় পুকুরের জমি জোরপূর্বক দখল করতে যায়। এতে বাধা দিলে কাওছার সিকদার (৩৩) ও তার শিশু মেয়ে সানজিদা (৫),ছোট বোন তহমিনা বেগম (২০) পিটিয়ে রক্তাক্ত যখম করেছে ঐ সন্ত্রাসীরা। এসময় আহতরা ডাকচিৎকার করলে তহমিনা বেগমের পরিহিত আট আনা ওজনের স্বর্নেও চেইন যা বাজার মূল্যে ৩২ হাজার টাকা ছিনিয়ে নিয়ে যায় এবং পরবর্তীতিতে প্রানে মেরে ফেলার হুমকী দিয়ে চলে যায়। আহতদের উদ্ধার করে বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। আর আগে গত ৩ এপ্রিল কাওছার সিকদারের প্রায় ৫০ হাজার টাকার ফলদ গাছ কেঠে ফেলে এস্কেন্দার সিকদারের সন্ত্রাসী বাহিনী নিয়ে। এসময় স্থানীয়দের সহায়তায় হামলার হাত থেকে রক্ষা পায় কাওছারের পরিবার। এ ব্যাপারে মোঃ কাওছার সিকদার বাদী হয়ে ঘটনার দিন এয়ারর্পোট থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। আহত কাওছার সিকদার বলেন ,আমরা গরীব অসহায় হওয়ায় আমাদের পরিবারের উপর ওই সন্ত্রাসীরা হত্যার উদ্দেশ্যে হামলা চালায়। এছাড়াও বিভিন্ন ভয়ভীতি দেখিয়ে আমাদের ভোগদখলীয় জমি দখল করতে চায়। এলাকাবাসীর অভিযোগ, দীর্ঘদিন ধরে এস্কেন্দার সিকদারের অত্যাচারে অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছে। তার বিরুদ্ধে এয়ারপোর্ট থানায় ডাকাতি, ছিনতাই,হরদাল ও মাদকসহ বিভিন্ন অভিযোগে মামলা রয়েছে। তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য স্থানীয় প্রশাসনের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছেন এলাকাবাসী। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, ৮নং ওয়ার্ডে মেঘিয়া গ্রামের এলাকার চিহিৃত ডাকাত, ইয়াবা ব্যবসায়ী এস্কেন্দার সিকদার ও তার ছেলে হেমায়েত সিকদার ধর্ষণ মামলার আসামী চিহিৃত মাদক ব্যবসায়ী। এছাড়াও এই এলাকাকে কেন্দ্র করে তাদের সাথে সাবেক ইউপি সদস্য সহিদের ক্ষমতার বলে গড়ে ওঠেছে মাদকদ্রব্যর রমরমা ব্যবসা। এয়ারপোর্ট থানার অফিসার ইনচার্জ জাহিদ বিন-আলম বলেন, লিখিত অভিযোগ পেয়েছি তদন্ত সাপেক্ষে অপরাধীদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে। ওই প্রভাবশালী ভূমিদস্যুদেও,মাদক ব্যবসায়ী কবল থেকে রেহাই পেতে প্রশাসনের উর্দ্ধোতন কর্তৃপক্ষের সুদৃষ্টি কামনা করেন আহত’র পরিবার।


যোগাযোগ

বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যলয় প্রধান কার্যালয়

মারীয়া কমপ্লেক্স, কাশিপুর বাজার, বরিশাল ।

মোবাইলঃ ০১৭১৬৬০৫৯৭১, ০১৫১১০৩৬৮০৯,০১৯১১১৭০৮৮৪

মেইলঃ barishalerprohor.news.bd@gmail.com

সামাজিক যোগাযোগ
Web Design & Developed By
ইঞ্জিনিয়ার বিডি নেটওয়ার্ক

প্রতিষ্ঠাতা :
মোঃ নাছিম শরীফ


ব্যবস্থাপনা সম্পাদকঃ মোঃ রাসেল আকন

মেইলঃ barishaler.prohor@yahoo.com
  • মোবাইলঃ ০১৭১১০৩৬৮০৯, ০১৯১৯০৩৬৮০৯
    • সম্পাদক ও প্রকাশক : নাজমুন নাহার শিমু
    • নির্বাহী সম্পাদক: কাজী সজল
    • বার্তা প্রধানঃ মোঃ আল আমিন হোসেন
    ডেইলি বরিশালের প্রহর কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। অনুমতি ছাড়া এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি ও বিষয়বস্তু অন্য কোথাও প্রকাশ করা বেআইনি।